আগামী ৩ দিনেও বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা

আগামী ৩ দিনেও বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা

বঙ্গোপসাগরে একটি লঘুচাপের সৃষ্টি হয়েছে। এ কারণে উপকূলীয় অঞ্চল ও রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে বিচ্ছিন্নভাবে  দমকা হাওয়াসহ বৃষ্টিপাত হচ্ছে। এ অবস্থা আগামী ২৬ অক্টোবর পর্যন্ত বিরাজ করতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

আজ বুধবার অক্টোবর সকাল থেকে আকাশ মেঘলা হওয়ার পর দুপুরের দিকে রাজধানীতে বৃষ্টি নামে। এতে তাপমাত্রাও কিছুটা কমে যায়।

আবহাওয়া অফিস সূত্রে জানা যায়, দক্ষিণ-পশ্চিম বঙ্গোপসাগর ও পশ্চিমবঙ্গ বঙ্গোসাগরের অদূরে তামিলনাড়ু-দক্ষিণ অন্ধ্রপ্রদেশের উপকূলে অবস্থানরত লঘুচাপটি বর্তমানে পশ্চিমমধ্য বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন দক্ষিণ-পশ্চিম বঙ্গোপসাগরে সুস্পষ্ট লঘুচাপ রূপে অবস্থান করছে। লঘুচাপের বেশিরভাগ অংশ উত্তর বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে।

আজ সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, খুলনা, রংপুর, রাজশাহী, ঢাকা, ময়মনসিংহ, বরিশাল, চট্টগ্রাম এবং সিলেট বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় অস্থায়ী দমকা হাওয়াসহ বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে।

এ কারণে গতকালকের চেয়ে সারাদেশের দিনের তাপমাত্রা সামান্য কমতে পারে। এছাড়া দেশের উত্তর-পশ্চিমাংশে রাতের তাপমাত্রা সামান্য বাড়তে পারে এবং অন্যত্র তা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে পারে।

এদিকে, পরবর্তী ৭২ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, এই সময়ে বৃষ্টিপাতের প্রবণতা বাড়তে পারে।

আবহাওয়াবিদ আবুল কালাম মল্লিক বলেন, ‘লঘুচাপের কারণে আগামী ২৬ অক্টোবর পর্যন্ত বিচ্ছিন্নভাবে বৃষ্টিপাত ও দমকা বাতাস থাকবে। এসময় দিন ও রাতের তাপমাত্রা কমবে।’

লঘুচাপের কারণে ঝড় হতে পারে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘লঘুচাপটি এখনও অনেক দূরে রয়েছে। আমরা পর্যবেক্ষণে রেখেছি।’

এই বৃষ্টিপাত শীতের আগমনী বার্তা নয় জানিয়ে আবাহওয়াবিদ মল্লিক বলেন, ‘নভেম্বরের শেষের দিকে রাতের তাপমাত্রা কমবে। সেটা শীতের আগমনী বার্তা হবে।’

আজ সকাল ৬টা পর্যন্ত বগত ২৪ ঘণ্টায় খেপুপাড়ায় ২০ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে। এছাড়া ঢাকা, শ্রীমঙ্গল ও পটুয়াখালীতে সামান্য বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে।

সমুদ্রবন্দর ও নদী বন্দরগুলোর জন্য আপাতত কোনো সতর্কবার্তা দেয়নি আবহাওয়া অফিস।

নাবা/ডেস্ক/কেএ

রিলেটেড নিউজঃ