সেলিম রেজার চিকিৎসা সাহায্যে এগিয়ে আসার আহবান

চৌগাছা (যশোর) : যশোরের চৌগাছার ফুলসারা গ্রামের সেলিম রেজার (৫৮) দু’টি কিডনি বিকল হয়ে গেছে। বর্তমানে তিনি টাকার অভাবে চিকিৎসা করতে না পেরে মানবেতর জীবনযাপন করছেন।
তার সুস্থ্যতার জন্য বিত্তবানদের কাছে সাহায্যের হাত বাড়িয়েছেন পরিবারের সদস্যরা। উপজেলার ফুলসারা গ্রামের মৃত আরশাদ আলীর ছেলে সেলিম রেজা (৫৮) পেশায় একজন ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী। ব্যবসা ও মাঠের জমিতে ফসল ফলিয়ে বেশ ভালোই চলত তার সংসার জীবন।
বিগত ১০ বছর আগে তিনি নানান জটিল রোগে আক্রান্ত হয়ে অসুস্থ্য হয়ে পড়েন। এ সময় তিনি দেশের বিভিন্ন স্থানে চিকিৎসকের কাছে চিকিৎসা গ্রহন করেন। অসুস্থ্যতার কারণে তার ব্যবসা বন্ধ হয়ে যায়। এমন পরিস্থিতির মধ্যে গত ২ মাস পূর্বে তিনি পুনরায় মারাত্মক অসুস্থ্যবোধ করেন। স্বজনরা দ্রুত যশোর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করান তাকে।
চিকিৎসকরা নানা পরীক্ষা নিরীক্ষা শেষে জানান, তার দুটি কিডনি বিকল হয়ে পড়েছে। এরপর থেকে তিনি যশোরের কুইন্স হাসপাতালে ডাক্তার অবাইদুল কাদির উজ্জ্বলের তত্ত্বাবধানে চিকিৎসাধীন আছেন। সেলিম রেজার স্বজনরা জানান, চিকিৎসকরা বলেছেন তাকে বাঁচিয়ে রাখতে হলে জরুরী ভিত্তিতে একটি কিডনি সংযোজন করতে হবে। অথবা প্রতি সপ্তাহে ২ থেকে ৩ বার ডায়ালাইসিস করতে হবে। একবার ডায়ালাইসিস করতে হলে সবমিলিয়ে ৫ থেকে ৬ হাজার টাকা খরচ হচ্ছে।গত ২ মাসে প্রায় ৩ লাখ টাকা ব্যয় হয়ে গেছে। বর্তমানে তাদের পক্ষে টাকা যোগাড় করা একেবারেই অসম্ভব হয়ে উঠেছে। সেলিম রেজার এক ছেলে ও এক মেয়ে; তারা সকলেই পড়ালেখা করে। ছেলে ১০ম শ্রেণির ছাত্র। আর মেয়ে অনার্স ৩য় বর্ষের ছাত্রী।সন্তানরা অশ্রুসিক্ত কণ্ঠে বলেন, বাবার অনেক আশা ছিল আমরা ভাই বোন মানুষের মতো মানুষ হব। বড় হয়ে বাবাকে সাহায্য করবো। কিন্তু সব কিছুই যেন এখন এলোমেলো হয়ে যাচ্ছে। বাবাকে সুস্থ্য অবস্থায় দেখতে সন্তানরা পাগল প্রায়।
প্রসঙ্গত, এক সময়ের গরীবের বন্ধু বলে এলাকায় পরিচিত সদা হাস্যোজ্জ্বল সেলিম রেজা সুন্দর এই পৃথিবীতে বাঁচতে চাই। তাকে সুস্থ্য করে তুলতে অনেক টাকার প্রয়োজন। সমাজে অনেক দানশীল ব্যক্তি আছেন, যাদের একটু সহযোগিতা পেলে হয়ত তিনি আবার সকলের মাঝে সুস্থ্য হয়ে ফিরে আসতে পারবেন। তাই অসহায় সেলিম রেজার স্বজনরা সমাজের বৃত্তবানদের নিকট মানবিক সাহায্যের আবেদন করেছেন। যোগাযোগের ঠিকানা-মোবাইল-০১৭১৯২৬৬১৪১, ইসলামী ব্যাংক চৌগাছা শাখার সঞ্চয়ী হিসাব নং ২০৫০২৭৫০২০২৫২৫২১৮, বিকাশ নং ০১৭১৯২৬৬১৪১।
নাবা/এমএমএ/