‘বাংলাদেশের চলচ্চিত্রকে সবাই মিলে বাঁচিয়ে রাখবো’

সদ্য মুক্তিপ্রাপ্ত একটি সিনেমা দেখলাম। তাহসান ভাই দারুণ অভিনয় করেছেন। একজন ভিলেনও (তাসকিন) ছিল। নতুন একজন অভিনেত্রীকে দেখলাম রানী। তার উপস্থাপনটাও ভালো ছিল।

আর ভারতীয় নায়িকা (শ্রাবন্তী) তো আছেনই। উনি সব সময়ই ভালো অভিনয় করেন। আশা করবো সবাই সিনেমাটি দেখবেন। আমরা সিনেমা হলে গিয়ে ছবি দেখে বাংলাদেশের চলচ্চিত্রকে বাঁচিয়ে রাখবো। আর একটা কথা না বললেই নয়।

এভাবেই বলছিলেন জনপ্রিয় অভিনেত্রী জিনাত সানু স্বাগতা। ‘যদি একদিন’ সিনেমা দেখার পর নিজের অনুভূতি এই কথাগুলোর মধ্যে দিয়ে ব্যক্ত করেন এই অভিনেত্রী।

গেল ৮ মার্চ সারাদেশের ২২টি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পায় ‘যদি একদিন’ সিনেমা। দ্বিতীয় সপ্তাহে অর্থাৎ আজ শুক্রবার আরও ১১টি প্রেক্ষাগৃহে প্রদর্শিত হচ্ছে সিনেমাটি। দ্বিতীয় সপ্তাহে ‘যদি একদিন’ একযোগে ৩৩টি প্রেক্ষাগৃহে প্রদর্শিত হচ্ছে। চলচ্চিত্রটির প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান বেঙ্গল মাল্টিমিডিয়া।

অভিনয় করেছেন তাহসান খান, শ্রাবন্তী, তাসকিন রহমান, সাবেরী আলম, রানী আহাদ, আনন্দ খালেদ, সুজাত শিমুল, ফখরুল বাশার মাসুম, মিলি বাশার, নাজিবা বাশারসহ অনেকে। গুরুত্বপূর্ণ একটি চরিত্রে অভিনয় করেছে শিশুশিল্পী আফরিন শিখা রাইসা।

‘যদি একদিন’ পরিচালনা করেছেন মুহাম্মাদ মোস্তফা কামাল রাজ। কাহিনী লিখেছেন পরিচালক নিজেই। চিত্রনাট্য যৌথভাবে করেছেন আসাদ জামান ও নির্মাতা রাজ।
নাবা/সেন্ট্রাল ডেস্ক/কেএইচ/