বঙ্গবন্ধুর জন্মদিনেন নানা কর্মসূচি

আগামী ১৭ মার্চ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৯৯তম জন্মবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস।

সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয় দিবসটি উদযাপন উপলক্ষে সকল জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে কুইজ ও চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা এবং আলোচনাসভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে।

জেলা প্রশাসনের সার্বিক তত্ত্বাবধানে উপজেলা প্রশাসন, শিল্পকলা একাডেমি এবং জেলা-উপজেলার সকল দফতর-সংস্থার সমন্বয়ে দিনব্যাপী কর্মসূচি পালন করা হবে।

বৃহস্পতিবার (১৪ মার্চ) সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের জ্যেষ্ঠ তথ্য কর্মকর্তা ফয়সাল হাসান স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

দিবসের বিস্তারিত কর্মসূচির মধ্যে থাকছে- সকালে স্কুল ও কলেজের শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে কুইজ ও চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা। বিকেলে থাকবে স্থানীয় রাজনীতিবিদ ও বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গের উপস্থিতিতে বঙ্গবন্ধুর জীবনী নিয়ে আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরণী এবং শিল্পীদের পরিবেশনায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

কুইজ ও চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত ক এবং নবম হতে দ্বাদশ শ্রেণি পর্যন্ত খ- এই দুই গ্রুপে অনুষ্ঠিত হবে।

চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতার ক গ্রুপের শিক্ষার্থীরা বঙ্গবন্ধুর ওপর শুভেচ্ছা কার্ড অঙ্কন করবে, যার বিষয়বস্তু ‘বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশ’ এবং খ গ্রুপের বিষয়বস্তু ‘বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধ’। অন্যদিকে কুইজ প্রতিযোগিতার বিষয়বস্তুও বঙ্গবন্ধু।
নাবা/সেন্ট্রাল ডেস্ক/কেএইচ/