তামিমদের মসজিদে ঢুকতে নিষেধ করেন এক নারী

নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে আল নুর মসজিদসহ দুটি মসজিদে সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় দুই বাংলাদেশিসহ ৪০ জন নিহত হয়েছেন। অল্পের জন্য রক্ষা পেয়েছেন বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের খেলোয়াড়রা। এক নারী তাদের মসজিদে ঢুকতে নিষেধ করার পর তারা দ্রুত সেখান থেকে সরে আসেন।

জানা গেছে, সেন্ট্রাল ক্রাইস্টচার্চের আল নুর মসজিদে জুমার নামাজ পড়তে যাচ্ছিলেন তামিম, মুশফিকসহ বাংলাদেশ দলের বেশ কয়েকজন ক্রিকেটার। তখনই হামলা হচ্ছিল সেই মসজিদে।

তামিমরা যখন মসজিদে ঢুকছিলেন, তখনই এক অজ্ঞাত এক নারী এসে তাঁদের সতর্ক করেছেন, ‘তোমাদের ভেতরে যাওয়া ঠিক হবে না, মসজিদের ভেতরে গোলাগুলি হচ্ছে।’

সেই নারীর কথা শুনে বাংলাদেশ দলের খেলোয়াড়রা বাসে উঠে মেঝেতে শুয়ে পড়েন। পরে বাস থেকে বেরিয়ে ক্রাইস্টচার্চের হ্যাগলি ওভাল স্টেডিয়ামের ড্রেসিংরুমে ঢুকে পড়েন খেলোয়াড়রা।

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) মিডিয়া কমিটির চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস এ ব্যাপারে জানিয়েছেন, ‘সেখানে নামাজ পড়তে যাওয়া বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের সদস্যরা নিরাপদে থাকলেও তাঁরা মানসিকভাবে আঘাত পেয়েছেন। আমরা দলের সব সদস্যকে হোটেলে অবস্থান করার কথা বলেছি।’

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান আজ শুক্রবার, ‘স্থানীয় সময় দুপুর ১টা ৩০ মিনিটে নামাজ শুরু হওয়ার কিছুক্ষণ পর একজন বন্দুকধারী সিজদায় থাকা মুসল্লিদের লক্ষ্য করে গুলি করে। এরপর জানালার কাচ ভেঙে হামলাকারী পালিয়ে যায়।’

নাবা/ডেস্ক/নয়ন